আগামীকাল যাত্রা শুরু ॥ বরিশাল-ঢাকা নৌ রুটে দিনের বেলায় যাত্রী পরিবহন করবে বে-ক্রুজার

বরিশাল টু-ডে ॥ মাত্র ৪ ঘন্টায় ঢাকা-বরিশালে আসা যাওয়া যাবে। তাও আবার দিনের বেলাতে। ঢাকা-বরিশাল নৌ-পথের যাত্রীদের সময় বাঁচানো বে-ক্রুজ নামে দ্রুতগামী আধুনিক শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত নৌযান বরিশাল আধুনিক নৌ-বন্দর ঘাটে এসে পৌছেছে। আগামীকাল রবিবার আনুষ্ঠানিক ভাবে যাত্রী পরিবহন করতে এ জাহাজটি।
ব্যক্তি মালিকানাধীন এই ক্রুজারে যাত্রা করে শুধু সময় কম লাগতে তা নয়। দিনের বেলায় প্রমত্তা পদ্মার সৌন্দর্য্য উপভোগ করা যাবে। পদ্মা-মেঘনা ও ডাকাতিয়া নদীর মোহনার ঘূর্ণাবত দেখার সুযোগ মিলবে। আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন বে-ক্রুজে নির্ভয়ে ভ্রমণ করা যাবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।
আজ শনিার নগরীর একটি রেস্তোরায় সাংবাদিক সম্মেলনে বে-ক্রুজারের  জানানো হয়  বরিশাল থেকে প্রতিদিন সকাল ৭টা ৩০ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে এবং ঢাকা থেকে প্রতিদিন দুপুর ২টায় বরিশালের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে। সমুদ্রগামী এমভি বে-ক্রুজার নামের বেসরকারী ক্যাটামেরান নৌযানের সর্বোচ্চ গতিসীমা ২৮ নটিক্যাল মাইল। মানে ঘন্টায় ৬০ কিলোমিটার বলে সাংবাদিক সম্মেলনে এক্সিকিউটিভ অফিসার লে. কমান্ডার (অবঃ) মোশারফ হোসেন। চেয়ার সিটিং সিস্টেমের এই নৌযানের আসনসংখ্যা ২৫২। কৃষ্ণচুড়া, হাসনা হেনা ও রজনীগন্ধা শ্রেনীর আসনের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে যথাক্রমে ১২শ, ১ হাজার, এবং ৮শ’ টাকা। ইতিমধ্যে সমুদ্র পরিবতন অধিদপ্তর থেকে জাহাজটি নির্ধারিত রুটে চলাচলের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ আভ্যন্তরীণ নৌযাত্রী পরিবহন সংস্থাও (লঞ্চ মালিক সমিতি) প্রয়োজনীয় অনুমতি দিয়েছে।