করোনা সন্দেহে শেবাচিম হাসপাতালে একদিনে আট রোগী ভর্তি

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে সন্দেহজনকভাবে দুই নারীসহ নতুন সাতজন রোগীকে ভর্তি করা হয়েছে। এ নিয়ে বর্তমানে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে করোনা সন্দেহে ১১জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। যারমধ্যে একজন ভর্তি হয়েছে শুক্রবার দিবাগত রাতে। রবিবার সকালে শেবাচিম হাসপাতাল পরিচালক ডাঃ মো. বাকির হোসেন জানান, নতুন যারা ভর্তি হয়েছে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা জন্য আইইডিসিআরএ পাঠানো হয়েছে। সূত্রমতে, জ্বর, গলা ব্যাথা ও কাশিসহ করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে বরগুনার পাথরঘাটা, পটুয়খালীর মির্জাগঞ্জ, ভোলা সদর, পিরোজপুরের নেছারাবাদ, মঠবাড়িয়া, বরিশাল নগরী ও ঝালকাঠি থেকে একজন করে রোগী ভর্তি হয়েছেন। এর আগে শুক্রবার দিবাগত রাত পৌনে ১০টার দিকে শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসেন মেহেন্দিগঞ্জের এক যুবক। জ্বর, গলা ব্যাথা ও কাশি থাকায় তাকেও করোনা আক্রান্ত সন্দেহে করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক বলেন, পরীক্ষার ব্যবস্থা না থাকায় নতুন আটজন রোগীকে সন্দেহজনকভাবে করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রবিবার আইইডিসিআরএ পাঠানো হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ইতিপূর্বে করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হওয়া চারজন এবং ওই ওয়ার্ডে মৃত্যু হওয়া দুইজনের নমুনা সংগ্রহ করে আইইসিডিআরএ পাঠানো হয়েছিলো। পরীক্ষার রিপোর্টে তাদের কারোর শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমন পাওয়া যায়নি।