বরিশালে জনবহুল এলাকার ব্যবহার অনুপযোগী পুকুর পরিচ্ছন্নতার উদ্যোগ

রাছেল শিকদার ॥
বরিশাল সিটি কর্পোরেশন ও কোতয়ালী মডেল থানার বিরোধে দেড়শ বছরের পুরনো জনবহুল এলাকার পুকুরটি শেষ পর্যন্ত এলাকাবাসী পরিচ্ছন্নতার উদ্যোগ নিয়েছে। বুধবার নগরীর কাটপট্টি এলাকার কোতয়ালী মডেল থানা সংলগ্ন পুকুরটি পরিচ্ছন্নতার জন্য একটি সাব কমিটি করে এলাকাবাসীর ব্যবহার উপযোগী করার জন্য কার্যক্রম শুরু হয়। ঐ কমিটির আহবায়ক হিরেন সিকদার, সদস্য সচিব মোঃ শাহ আলম খন্দকার, সদস্য মনোয়ার হোসেন, সাংবাদিক আলী জসিম, সেন্টু, বনিক, শিবু দাস সহ অন্যান্যরা উপস্থিত থেকে পুকুরটি পরিচ্ছন্নতার জন্য লেবার দিয়ে কার্যক্রম শুরু করেন। সরেজমিনে গিয়ে এলাকাবাসীর সাথে আলাপকালে জানা যায়, ঘনবসতিপূর্ণ এলাকার মানুষের ও স্থানীয় মন্দিরের কাজে ব্যবহারে ঐ এলাকায় এ পুকুরটি ছাড়া পানির বিকল্প কোনো ব্যবস্থা নেই। এলাকাবাসীর অভিযোগ সিটি কর্পোরেশন ও কোতয়ালী মডেল থানার বিরোধে দীর্ঘ দিন অনুপযোগী এ পুকুরটির পানি পচে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়েছিলো। এ থেকে জনবহুল এ এলাকার বাসিন্দাদের নানান রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়ায় এলাকাবাসী বাধ্য হয়ে পুকুরটি পরিস্কারে নেমেছে। সাব কমিটির একাধিক সদস্য জানান, পুকুরটি রক্ষায় ইতি পূর্বে বেশ কয়েকবার সিটি মেয়র, স্থানীয় কাউন্সিলের কাছে লিখিত আবেদন জানানলেও কোনো ফল পাওয়া যায়নি। তাই তারা নিজেই সাব কমিটি গঠন করে স্থানীয় দু’ কাউন্সিলরকে উপদেষ্টা করে পুকুরটি পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতায় নেমেছেন। স্থানীয় প্রবীণরা জানান, দেড়শ বছরের পুরনো পুকুরটি এক সময় বরিশাল সিটি কর্পোরেশন দেখভাল করতো। কয়েক বছর পূর্বে কোতয়ালী মডের থানা পুলিশ পুকুরটি তাদের হেফাজতে নেয়ার পর থেকে পরিস্কার না করায় পুকুরটি ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়ে।