বরিশালে মাতৃসদন ও শিশু কল্যান কেন্দ্র চালুর দাবিতে মানববন্ধন

বরিশাল টুডে ॥ বন্ধ হয়ে যাওয়া আমানতগঞ্জ রেডক্রিসেন্ট মাতৃসদন ও শিশু কল্যান কেন্দ্র পুনরায় চালুর দাবীতে বুধবার মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে এলাকাবাসী। মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন আমানতগঞ্জ রেডক্রিসেন্ট মাতৃসদন ও শিশু কল্যান কেন্দ্র বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক গোলাম কিবরিয়া মনু।
নগরীর বেলতলা থেকে বাকলার মোড় পর্যন্ত দুই কিলোমিটার দীর্ঘ মানববন্ধনে বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থী, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ নানা পেশার মানুষ অংশ নেন।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তারা বলেন ১৯৩৭ সালে ব্রিটিশ নাগরিক হলিং বেরী স্বল্প খরচে হতদরিদ্র মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে রেডক্রিসেন্ট হাসপাতাল নির্মান করেছিলেন। পরে সেটি রেডক্রিসেন্ট মাতৃসদন ও শিশু কল্যান কেন্দ্র হিসেবে পরিচয় লাভ করে। এখান থেকে মাত্র ১০ টাকার বিনিময়ে মা ও শিশুরা বহি: বিভাগে চিকিৎসা সেবা পেত। ৩ থেকে ৪ হাজার টাকায় প্রসূতি নারীদের অস্ত্রপচার করা হতো। বিনামূল্যে গরিব রোগীদের ঔষধ সরবরাহ করত কর্তৃপক্ষ।

কিন্তু চলতি বছরের ৫ ফেব্র“য়ারী একটি কুচক্রী মহল স্বাস্থ্য সেবাকে পুঁজি করে মাতৃসদন ও শিশু কল্যান কেন্দ্র বন্ধ করে দিয়ে ‘হলিং বেরী সৈয়দ মোয়াজ্জেম রেড ক্রিসেন্ট হাসপাতাল’ নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান চালু করে রোগীদের কাছ থেকে ইচ্ছা মাফিক ফি আদায় করছে তারা। যার ফলে গরীব রোগীরা স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। বহি:বিভাগের ১০ টাকার ফি ৬০ টাকা করা হয়েছে। প্রসূতি নারীদের ৩ থেকে ৪ হাজার টাকার অস্ত্রপচার এখন ১৮ থেকে ২০ হাজার টাকা খরচ করে করতে হয় বলে ভূক্তভোগীরা অভিযোগ করেন। এছাড়া বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বিনামূল্যের ঔষধ সরবরাহ।

অতি শীঘ্র রেডক্রিসেন্ট মাতৃসদন ও শিশু কল্যান কেন্দ্র চালু এবং রোগীদের পূর্বের ন্যায় সুযোগ-সুবিধা দেয়া না হলে বৃহত্তর কর্মসূচি ঘোষনা করা হবে বলে আয়োজকরা জানান।