বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের গত ২৪ ঘন্টায় করোনা উপসর্গে পাঁচ ও আক্রান্তে এক রোগীর মৃত্যু

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (শেবাচিম) করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় উপসর্গে পাঁচ ও আক্রান্ত হয়ে এক জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনা উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে মারা যায় তারা। তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন। তিনি জানান, করোনা উপসর্গ নিয়ে গত শুক্রবার রাত ৪টা ৩০ মিনিটে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হন পটুয়াখালী সদর ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা কামাল ভূইয়া (৬০)। গত শনিবার রাত ১১টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সে। রবিবার সকাল ৮টা ১ মিনিটে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় বাকেরগঞ্জের রামনগর এলাকার রকিবুল ইসলামের স্ত্রী ফিরোজা বেগম (৪০)। এর আগে গত বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে করোনা উপসর্গ নিয়ে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন তার স্বজনরা। একই দিন সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় বরিশালের কাউনিয়া ব্রাঞ্চ রোডের বলয় চাদ দাসের সহধর্মীনি পুতুল রানী দাস (৬০)। এর আগে গত শুক্রবার বিকেল ৪টা ৩৫ মিনিটে করোনা উপসর্গ নিয়ে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন তার স্বজনরা। করোনা উপসর্গ নিয়ে গত বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টা ৩০ মিনিটে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হন উজিরপুরের শারশি এলাকার নূর মোহাম্মদ সরদারের ছেলে ইউসুফ সরদার (৩৫)। রবিবার দুপুর ৩টা ৩০ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সে। রবিবার রাত ১০টায় হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় বাকেরগঞ্জের রুনসী এলাকার খন্দকার আলী (৭০)। এর আগে গত (১৮ই) জুন বৃহস্পতিবার রাত ১১টা ৫০ মিনিটে করোনা উপসর্গ নিয়ে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন তার স্বজনরা। এছাড়া করোনা পজেটিভ হয়ে মারা যায় বরিশাল বিমানবন্দর এলাকার মিজানুর রহমানের স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৪৪)। এর আগে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটে করোনা উপসর্গ নিয়ে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন তার স্বজনরা। পরবর্তিতে নমুনা পরীক্ষার পর তার রিপোর্ট করোনা পজেটিভ আসে। রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় চিকিৎসাধীন আবস্থায় করোনা ওয়ার্ডে তার মৃত্যু হয়। মৃত ছয় জনের মধ্যে এক জনের করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়। বাকী পাঁচ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।