মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব হলেন বরিশালের কৃতি সন্তান আমিনুল ইসলাম খান

কাইয়ূম আহমেদঃ গত ১১ ফেব্রুয়ারি তারিখে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপনে জারিকৃত গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জনাব মো. আমিনুল ইসলাম (টিপু) খানকে পদোন্নতি দিয়ে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে নতুন দায়িত্ব প্রদান করা হয়। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় গতকাল মঙ্গলবার এ পদোন্নতির আদেশ জারি করেন। আমিনুল ইসলাম খান সরকারের প্রশাসনিক কর্মকর্তা হিসেবে ১৯৮৯ সালে যোগদান করেন। এরআগে তিনি কাতারের বাংলাদেশ এ্যাম্বাসির প্রথম সচিব ছিলেন। এছাড়াও তিনি কমনওয়েলথের সচিরালয়ের যুব বিষয়ক এশিয়া আঞ্চলিক কেন্দ্রের প্রধান হিসেবে নিজুক্ত ছিলেন। বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জের সন্তান আমিনুল ইসলাম খান ২০১৪ সাল পর্যন্ত শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের যুগ্ন সচিব হিসেবে নিজুক্ত ছিলেন। দীর্ঘ ২৭ বছরের পেশাদারী জীবনে সরকারি, কূটনীতি এবং আন্ত-সরকারি প্রতিষ্ঠানের হয়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন। আমিনুল ইসলাম খান এই দক্ষিন অঞ্চলের নয় বাংলাদেশে জন্য এক নিবেদিত প্রান। তিনি এদেশকে সোনার বাংলা হিসেবে রূপান্তর করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমিনুল ইসলাম খান ৮০ দশকের ছাত্র নেতা বিএম কলেজের সাবেক জিএস মরহুম শহিদ খানের ছোট ভাই। তিনি অত্যন্ত মেধাবী, সদালাপী এবং সু-বক্তা হিসেবে পরিচিত। আমিনুল ইসলাম খান দেশ ও জনগনের স্বার্থ বিরোধী অনেক অন্যায় ও অনিয়মের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রাম করেছেন। এমন এক ব্যক্তিকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে দায়িত্ব প্রদান করায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন বরিশালের সর্বস্তরের মানুষ। সবার প্রত্যাশা আমিনুল ইসলাম খান এর হাত ধরে মুক্তিযোদ্ধাদের সহ দেশের সবার কল্যান সাধিত হবে। এতেকরে মন্ত্রণালয়ের পূর্বের সব অনিয়ম সহ প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধারা মূল্যায়িত হবে।