হিজলায় মৃত্যুর ১১ দিন পর রহস্যজনকভাবে অগ্নিদগ্ধে মৃত্যুবরণকারী গৃহবধূর লাশ উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ

বরিশালের হিজলায় মৃত্যুর ১১ দিন পর রহস্যজনকভাবে অগ্নিদগ্ধে মৃত্যুবরণকারী গৃহবধুর লাশ সোমবার উত্তোলন করা হয়েছে। আদালতের নির্দেশে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। হিজলা থানার অফিসার ইনচার্জ অসীম কুমার সিকদার জানান, গৃহবধূ ইসমত জাহান ইমার লাশের ময়নাতদন্তের জন্য আদালতে আবেদন করা হয়। ঐ আবেদনের প্রেক্ষিতে সোমবার তার বাবার বাড়ি হরিনাথপুর ইউনিয়নের মহিষখোলায় হিজলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আমিনুল ইসলামের উপস্থিতিতে লাশ উত্তোলন করা হয়।
উল্লেখ্য, গত ১১ জুন হিজলার বড় জালিয়া ইউপি’র খুন্না গবিন্দপুর এলাকায় স্বামীর বাড়িতে অগ্নিদগ্ধ হন ইসমত জাহান ইমা। সেসময়ে স্বামী মহসিন রেজা দাবী করেন গ্যাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে তার স্ত্রী অগ্নিদগ্ধ হয়েছে। এরপর চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১৮ জুন রাজধানীর শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিট সার্জারী হাসপাতালে ইমা মৃত্যুবরণ করে। পরবর্তীতে ইমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একটি ভিডিও ও স্বামী মহসিনের খালাতো বোনের সাথে পরকীয়ার বিষয়টি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। গত ২১ জুন ইমার পিতা সফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে ইমার স্বামী মহসিন, শ^শুর, দেবর ও পরকীয়া প্রেমিকাকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ ইমার শ^শুর দেলোয়ার হোসেন ধলু বেপারীকে গত ২৩ জুন গ্রেফতার করে। পুলিশ সূত্র জানিয়েছে মামলার অধিকতর তদন্তের জন্য লাশের ময়নাতদন্ত করা হচ্ছে।