অপহরণের ৩৮ দিন পর উজিরপুর থেকে অপহৃত কিশোরী গাজীপুর থেকে উদ্ধার ॥ মূল আসামী গ্রেফতার

বরিশালের উজিরপুর থেকে এক কিশোরীরে (১৬) অপহরণের ঘটনায় মূল আসামীকে গ্রেফতার করেছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। একই সাথে গাজীপুর থেকে ঐ তরুনীকে উদ্ধার করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় বরিশাল জেলা পুলিশের কনফারেন্স রুমে এক সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে বরিশাল জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোছাইন জানান, গত ২৮ জুন উজিরপুর উপজেলার বাসিন্দা মো. নজরুল ইসলাম হাওলাদার স্থানীয় থানায় তার মেয়ে (১৬) অপহরনের মামলা করেন। মামলায় উল্লেখ করা হয় একই এলাকার বাসিন্দা ময়না বেগম ও লিপি বেগম সহ অজ্ঞাতনামা আরও ২/৩ জন পাঁচারের উদ্দেশ্যে ঐ কিশোরীকে অপহরন করে। এরমধ্যে ৩ আগস্ট সকালে টাঙ্গাইল জেলার ভূঞাপুর থানাধীন ভরুয়া নামক স্থান থেকে একটি অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার করে সেখানকার পুলিশ। ঐ নারীর মৃতদেহ উদ্ধারের বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপকভাবে প্রচারিত হয়। ভিকটিমের বাবা মা ঐ লাশ তাদের মেয়ের বলে ধারণা করে। পরে পুলিশ ভিকটিমের অভিভাবকদের নিয়ে টাঙ্গাইল জেলার ভূঞাপুরে পৌছায়। তবে ঐ মৃতদেহ ভিকটিমের না বলে পরে নিশ্চিত করে অভিভাবকরা। এরপর ধারণা করা হয় ভিকটিমকে আর জীবিত উদ্ধার সম্ভব নয়। পরবর্তীতে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় বুধবার রাত ৮টার দিকে গাজীপুরের শ্রীপুর থানার কেওয়া গ্রামের মো. মিজানের বাড়ি থেকে ঐ কিশোরীকে উদ্ধার করে বরিশাল জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। একই দিন রাত সাড়ে ১২টায় অপহরনে জড়িত থাকার অভিযোগে মো. মিজানকেও গ্রেফতার করে পুলিশ।
জিজ্ঞাসাবাদ শেষে দুপুরে গ্রেফতার মিজানকে উজিরপুর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। অপরদিকে উদ্ধারকৃত কিশোরীকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।