দেশব্যাপী নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবীতে বরিশালে বিএনপির সংবাদ সম্মেলন

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ন মহাসচিব ও বরিশাল মহানগর বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোটেক মজিবর রহমান সরোয়ার বলেছেন, দেশে নিশিরাতের সরকার বসে আছে তারা প্রশাসনের রাষ্ট্রয়ন্ত্র ব্যবহার করে মানুষের জবাবদীহিতা কেড়ে নিচ্ছে। দেশের কোথাও আজ গণতন্ত্র নেই। সরকার গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান গুলোকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। দেশব্যাপী নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবীতে বিগত সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনিত মেয়র প্রার্থীদের নেতৃত্বে ১৮ই ফেব্রুয়ারী বরিশাল মহানগর বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রশাসনের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত অনুমতি না পাওয়ায় সমাবেশ সফল করা অনিশ্চিয়তা দেখা দিয়েছে। বুধবার দুপুরে সদর রোডস্থ বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত গনমাধ্যম কর্মীদের সাথে মত বিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তিনি আরও বলেন, আজ তারা ইভিএমের মাধ্যমে ডিজিটাল কারচুপি করে জনগনের ভোটের অদিকার হরন করছে। আজ দেশে কোথাও গণতন্ত্র নেই। অন্যদিকে প্রশাসনের লোকজন সর্বত্র নৌকা মার্কা দেখলে অস্থির হয়ে উঠে তাদের পক্ষে কাজ করার জন্য। আজ দেশে যদি গণতন্ত্র থাকত তাহলে জবাব দিহী থাকত। তিনি বলেন আমরা দুর্নীতিগ্রস্থ উন্নয়ন দেখতে চাই না। সরকার শহর থেকে ইউনিয়ন পর্যয়ে নৌকা দিয়ে আটকে রেখেছে। আজ মানুষের মৌলিক অধিকার গণতন্ত্রহীনতা হয়ে পড়ার কারনেই দেশের দূর্নীতি বন্ধ করতে পারছে না সরকার। তিনি আরও বলেন, সরকার একদিকে বলছে তারা শক্তিশালী বিরোধী দল দেখতে চায়। অন্যদিকে বিরোধী দল সভা-সমাবেশ মিছিল-মিটিং ও রাস্তায় কথা বলতে গেলে সেখানে বাধাগ্রস্থ করে রাখে। আজ সিমান্তে মানুষে হত্যা করছে বন্ধু রাষ্ট্র সেখানে সরকার কোন মুখ খুলছে না। বিরোধীদলকে তারা কিছু বলতে দেবে না। একারনে আমরা বিক্ষোভ সমাবেশের মাধ্যমে দেশের গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার জন্য এই সমাবেশ করার আয়োজন করেছি সেখানে এখনও আমাদের প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো অনুমতি দেয়নি। অপরদিকে মঙ্গলবার গভীর রাত থেকে নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে বিএনপি নেতা কর্মীদের বাসা বাড়িতে অভিযান চালিয়েছে। আমরা একটি শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে চাই। আশাকরি সরকার আমাদের অনুমতি দিয়ে সমাবেশ সফল করার কাজে সহযোগীতা করবে।
এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য ও বরিশাল উত্তর জেলা বিএনপি সভাপতি মেজবা উদ্দিন ফরহাদ, বরিশাল মহানগর বিএনপি ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জিয়া উদ্দিন সিকদার, সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম রুনু সরদার সহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।