“দেশের উন্নয়নের সাথে সাথে মন মানসিকতার উন্নয়ন ঘটাতে হবে, সবাইকে আইনমান্যকারী নাগরীক হতে হবে” — বিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার

বরিশাল মেট্রোপরিটন পুলিশের (বিএমপি) অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (সদর-দপ্তর) প্রলয় চিসিম বলেছেন, আমরা পাকিস্তানের পুলিশ নই, আমরা স্বাধীন বাংলার পুলিশ। আমাদের দেশ অনেকটা এগিয়ে যাচ্ছে, শীঘ্রই পদ্মাসেতু চালু হতে যাচ্ছে। বিগত বছরের চেয়ে আরও বেগবান হয়ে কাজ করছি। সমাজের সবাই মিলে একটা ভালো প্লাটফর্ম তৈরী করে অগ্রসর হতে পারলে সমাজবিরোধী অপরাধীদের কোন ঠাঁই হবে না, তাদেরকেও সুপথে ফিরিয়ে আনা সম্ভব হবে। মঙ্গলবার বন্দর থানা বিএমপি কর্তৃক আয়োজিত ওপেন হাউজ ডেতে প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি এসব কথা বলেন। শুরুতে ইংরেজি নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, দেশের উন্নয়নের সাথে সাথে মন মানসিকতার উন্নয়ন ঘটাতে হবে, দেশ উন্নত করার জন্য নারী পুরুষ সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে, মাদক থেকে সবাইকে দূরে থাকতে হবে, সবাইকে আইনমান্যকারী নাগরীক হতে হবে। জমিজমা ও ঠুনকো বিষয় নিয়ে মারামারি হানাহানি চলবে না, আমাদের আরও সচেতন হতে হবে, এলাকার মুরব্বিদের নিয়ে সমাধান করতে হবে। তিনি বলেন, থানা জনগণের শেষ আশ্রয়স্থল, অপরাধ দানাবাঁধার আগেই অপরাধ নিয়ন্ত্রণে আনতে আমরা আরও ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র এরিয়ায় বিভক্ত হয়ে কমিউনিটি পুলিশিংএর পরিপূরক বিটপুলিশিং কার্যক্রম নিয়ে আপনাদের দোরগোড়ায় পৌঁছে গেছি। আমাদের তথ্য দিয়ে পাশে থাকুন। বন্দর থানা এলাকায় আগের চেয়ে অপরাধ প্রবণতা কমেছে মর্মে আগত অতিথিবৃন্দের বক্তব্যের প্রেক্ষিতে বিশেষ অতিথি, বিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) মো. আলী আশরাফ ভূঞা বলেন, এলাকার পরিবেশ আরও শান্ত রাখতে অপরাধ নিয়ন্ত্রণে পুলিশ জনতা এক হয়ে কাজ করতে হবে। কোথাও কোন অপরাধ সংগঠিত হওয়ার আগেই পুলিশকে জানাতে হবে। এলাকায় চুরি সহ অন্যান্য অপরাধ নিয়ন্ত্রণে রাখতে কাউকে সন্দেহ হলে আমাদের অবগতকরন ও সতর্ক হওয়ার জন্য অনুরোধ রইল। এক্ষেত্রে সমাজের সর্বস্তরের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গের সহযোগিতা কামনা করছি। ওপেন হাউজ ডেতে সমাজের ভালোর জন্য প্রতিমাসে একটি করে তথ্য ও পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করুন, তথ্যদাতার পরিচয় গোপন রেখে আমরা কাজ করবো। বিএমপির বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান এর সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশেষ অতিথি অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) মো. ফজলুল করীম, থানার অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ সহ সুশীল সমাজের সর্বস্তরের প্রতিনিধি ও গণমাধ্যম মিডিয়ার ব্যক্তিবর্গ।