পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কৃষিবিদ দিবস পালিত

‘বঙ্গবন্ধু’র অবদান, কৃষিবিদ ক্লাস ওয়ান’ সেøাগানকে সামনে রেখে যথাযোগ্য মর্যাদায় পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি) কৃষিবিদ দিবস-২০২১ পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শনিবার সকাল ১০ টায় একাডেমিক ভবনের সামনে বঙ্গবন্ধু’র প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন ভাইস-চ্যান্সেলর (রুটিন দায়িত্ব) প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত। পরে একাডেমিক ভবনের সামনে থেকে ভাইস চ্যান্সেলরের নেতৃত্বে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে ক্যাম্পাস ও দুমকি উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে একাডেমিক ভবনে এসে শেষ হয়। র‌্যালি শেষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রফেসর ড. মো. ফজলুল হকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি’র বক্তব্য রাখেন ভাইস-চ্যান্সেলর (রুটিন দায়িত্ব) প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক প্রো ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর মোহাম্মাদ আলী। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন প্রফেসর ড. মো. জাহিদ হাসান। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি সাবেক প্রো ভাইস-চ্যান্সেলর ও বর্তমান পোস্ট গ্রাজুয়েট স্ট্যাডিজ অনুষদের ডিন প্রফেসর মোহাম্মাদ আলী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদদের ক্লাস ওয়ান মর্জাদা দান করেছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার কৃষি বান্ধব সরকার, তিনি দেশের কৃষির উন্নয়নে ব্যপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন। সমাজে কৃষিবিদদের অধিকতর পরিচিতির জন্য কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাসিমের বিভিন্ন কার্যক্রমের কথা তিনি উলে¬খ করেন। প্রধান অতিথি ভাইস-চ্যান্সেলর (রুটিন দায়িত্ব) প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত বলেন, ১৯৭৩ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের চত্বরে দাড়িয়ে বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদদের প্রথম শ্রেণির মর্যাদা প্রদান করেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২০১০ সালের ২৭ নভেম্বর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনের (কেআইবি) এক সাধারণ সভায় ১৩ ফেব্রুয়ারিকে কৃষিবিদ দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়।