বরিশালের বাকেরগঞ্জে বিকাশ এজেন্টের ১১ লাখ টাকা ছিনতাই মামলার প্রধান আসামী তুরান এক বছর পর গ্রেফতার

বরিশালের বাকেরগঞ্জ পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড থেকে বিকাশ এজেন্টের ১১ লাখ টাকা ছিনতাই মামলার প্রধান আসামী তুরান সিকদারকে এক বছর পর গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত রবিবার গভীর রাতে ৪ নম্বর ওয়ার্ডে অভিযান চালিয়ে তুরানকে গ্রেফতার করা হয়। তুরান পটুয়াখালী শহরের পুরাতন আদালতপাড়া এলাকার খোকা শিকদারের ছেলে। ছিনতাই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে তুরানকে গত সোমবার বিকেলে আদালতে সোপর্দ করা হলে বিচারক তার ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই রফিকুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৪ নম্বর ওয়ার্ডে অভিযান চালিয়ে তুরানকে গ্রেফতার করা হয়। পরদিন সোমবার তাকে আদালতে সোপর্দ করে ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হলে বিচারক তার ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তুরানের সাথে ওই ছিনতাই ঘটনায় জড়িত আরও দুইজনকে গ্রেফতারের চেস্টা চরছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
গত বছর ৫ এপ্রিল বরিশাল নগরীর বাজার রোড অফিস থেকে ১১ লাখ টাকা নিয়ে বাকেরগঞ্জের চরামদ্দি ইউনিয়নের কালিদাসিয়া বাজার, সরসী বাজার, কাকরধা বাজার সহ আশপাশ এলাকার বিভিন্ন বিকাশ এজেন্টদের কাছে ডিস্ট্রিবিউশন করতে যান অথরাইজড অব বিকাশ লিমিটেডের বরিশালের সেলস ডিস্ট্রিবিউশন প্রতিষ্ঠান মেসার্স সাদ সাঈদ এন্টারপ্রাইজের সেলস অফিসার মাইদুল ইসলাম ইরান। পথিমধ্যে কাটাদিয়া খেয়াঘাট এলাকায় ৩ দুর্বৃত্ত ইরানের মোটর সাইকেলের গতিরোধ করে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে ইরানকে কুপিয়ে তার সাথে থাকা ১১ লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ইরান বাদী হয়ে তুরান সহ ৩ জনকে অভিযুক্ত করে বাকেরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার পলাতক আসামী তুরানকে গ্রেফতার করে পুলিশ।