বরিশালে অস্ত্র ও ডাকাতির মালামালসহ আটক-৪

বরিশাল টুডে ॥ নগরীর রূপাতলীতে নস্কর বাড়িতে ডাকাতির ৩৯ দিন পর ৪ ডাকাতকে ডাকাতির মালামাল ও দেশীয় অস্ত্রসহ আটক করেছে পুলিশ। ডাকাতির পর বিএমপি’র অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার আতিকুর রহমান মিয়া কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশের সহযোগিতায় বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে। শনিবার দুপুরে কোতয়ালী মডেল থানায় বিএমপি’র অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার আতিকুর রহমান মিয়া প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান, গত ২৮ মে নগরীর রূপাতলীর লস্কর বাড়িতে এক সেনা সদস্যের বড়িতে ডাকাতি সংঘটিত হয়।
পরদিন ঐ সেনা সদস্যের স্ত্রী কোতয়ালী মডেল থানায় মামলা দায়ের করলে তিনি সহ কোতয়ালী থানা পুলিশ অভিযানে নামে।

মোবাইল ট্যাকিংয়ের মাধ্যমে আসামী আলমের বান্ধবীকে রাজধানীর আশুলিয়া থেকে ২ জুন আটক করা হয়। তার দেওয়া তথ্য মতে ডাকাতি হওয়া একটি মোবাইল সেটসহ আলম রাঢ়ীকে পরদিন গ্রেফতার করা হয়। আলম জিজ্ঞাসাবাদে ৬ জনে মিলে ডাকাতি সংঘটিত করে বলে জানায়। আলমের দেয়া তথ্য মতে নগরীর শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সেতুর দপদপিয়া এলাকা থেকে সহযোগি মনিরকে আটক করা হয়। মনিরের দেওয়া তথ্যে নগরীর কাজীপাড়ার একটি ছাত্রাবাস থেকে ডাকাতির মুল হোতা সেনাবাহিনী থেকে বরখাস্ত ওবায়দুর রহমান ফারুক ওরফে আর্মি ফারুককে ডাকাতির মালামাল ও আলামতসহ গ্রেফতার করা হয়। এরপর আটক করা হয় উজিরপুরের বামরাইল থেকে মিরাজকে। আটককৃতদের কাছ থেকে ডাকাতির মালামাল এবং ডাকাতিকালে ব্যাবহৃত যন্ত্রপাতি এবং ২টি রামদা উদ্ধার করা হয়।
অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার আতিকুর রহমান মিয়া জানান, বাকি দু’জন ডাকাতকে গ্রেফতার ও ডাকাতির অন্যান্য মালমাল উদ্ধারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।