বরিশালে গৃহবধূ বিলকিস বেগমকে কুপিয়ে হত্যার আসামীর ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন

বরিশাল নগরীর ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের শেরে বাংলা সড়কের মা মঞ্জিলে পুত্রের চোখের সামনে তার মা বিলকিস বেগমকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িত সদ্য গ্রেফতারকৃত আসামী আলম শরীফের ফাঁসির দাবীতে এলাকাবাসীদের নিয়ে মানববন্ধন করেছে নিহতের দুই সন্তান। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় সদররোডের অশ্বিনী কুমার টাউন হলের সমনে মানববন্ধন শেষে নিহত বিলকিস বেগমের দুই পুত্র কান্নাজড়িত কন্ঠে তাদের মায়ের হত্যাকারীর ফাঁসির দাবী জানান। এসময় নিহতের দুই পুত্র ইমন শরীফ ও তার ছোট ভাই শান্ত শরীফ অভিযোগ করে বলেন, বর্তমানে হত্যাকারী আলম শরীফের পক্ষ অবলম্বনকারীরা মামলা তুলে নেয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের প্রলোভনসহ বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিয়ে আসছে। মানববন্ধনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নিহতের পিতা মামলার বাদী মফিজ উদ্দিন হাওলাদার প্রমুখ।
উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ১৪ই ডিসেম্বর রাতে বিলকিস বেগমের দেবর আলম শরীফ এক লাখ টাকার চেক লিখে তাতে স্বাক্ষর করতে বলেন বিলকিস বেগমকে। চেকে স্বাক্ষর না করায় কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ভাতিজা ইমন শরীফের সামনেই বিলকিস বেগমকে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায় আলম শরীফ। এরপর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৫১দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরন করেন বিলকিস বেগম। এঘটনায় নিহত বিলকিসের পিতা মফিজ উদ্দিন হাওলাদার বাদী হয়ে মেট্রোপলিটন এয়ারপোর্ট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে মামলার তদন্তকারী পুলিশের উপ পরিদর্শক সুলতান আহমেদ হত্যাকারী আলম শরীফের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জসিট দাখিল করেন। দীর্ঘ সাত বছর পালিয়ে থাকার পর গত ১৮ জানুয়ারী ভোররাতে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহি এমভি ফারহান লঞ্চ থেকে গ্রেফতার করা হয় আলম শরীফকে। পরে আদালতে তাকে হাজির করা হলে আদালত আলম শরীফকে জেল হাজতে প্রেরন করার নির্দেশ দেন।