বরিশালে গ্রামীণ ব্যাংকের ৮ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের ৭টি মামলা দায়ের

বরিশাল টুডে ॥ গ্রামীন ব্যাংকের ৮ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে প্রায় দু’ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ৭টি মামলা দায়ের করেছে দুদক। প্রত্যেক মামলার প্রধান আসামি গ্রামীণ ব্যাংকের রায়পাশা শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক দেলোয়ার হোসেন ও গ্রামীন ব্যাংকের স্থানীয় এরিয়া অফিসের প্রোগ্রাম অফিসার আব্দুর সবুর মোহাম্মদ বাকীউস। এছাড়াও গ্রামীণ ব্যাংকের কর্মকর্তা শাহ আলমকে ৪টি, রতন প্রভা হালদার, কেন্দ্র ব্যবস্থাপক মনিরুল ইসলাম এবং ওমর ফারুককে দু’টি করে, কেন্দ্র ব্যবস্থাপক কামরুন্নাহার ও ইব্রাহিম খলিলকে একটি করে মামলায় আসামি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে কোতোয়ালী মডেল থানায় মামলাগুলো দায়ের করেন দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর জেলা সহকারী পরিচালক ওয়াজেদ আলী গাজী। মামলার বাদি জানান, ২০০৫ সালের ১০ মে থেকে ২০১১ সালের ৭ জুলাই পর্যন্ত দেলোয়ার হোসেন রায়পাশা শাখার ব্যবস্থাপক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ঐ সময়ে গ্রাহকদের নামে ১ কোটি ৮৩ লাখ টাকার ঋণ উত্তোলন করে ব্যাংকের অন্যান্য কর্মকর্তাদের (আসামিদের) যোগসাজসে পুরো টাকা আত্মসাত করেন।

মামলার বাদী জানান, আসামিদের বিরুদ্ধে আরো ২৩টি মামলা দায়ের করা হবে। মামলার এজাহারে আসামিদের বিরুদ্ধে বিশ্বাস ভঙ্গ করে পরস্পরের যোগসাজসে গ্রাহকদের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়।

প্রসঙ্গতঃ গত বছরের ৩ অক্টোবর সাবেক শাখা ব্যবস্থাপক দেলোয়ার হোসেনসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে গ্রামীণ ব্যাংকের আমানতকারীদের ১ কোটি ২৫ লাখ ৫৭ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে আরো ১৭টি মামলা দায়ের করেন দুদক’র জেলা সহকারী পরিচালক ওয়াজেদ আলী গাজী।