বরিশালে চিকিৎসাখাতের উন্নয়নের দাবিতে বাসদ নেতা কর্মীদের সড়ক অবরোধ কর্মসূচি

বরিশালে “বিনা পরীক্ষায়, বিনা অক্সিজেনে, বিনা চিকিৎসায় কোন মৃত্যু আমরা চাই না” শ্লোগানকে সামনে রেখে করোনা পরীক্ষায় দীর্ঘ সময় নেয়া, হয়রানী বন্ধ, পিসিআর ল্যাব বাড়িয়ে প্রতিদিন কমপক্ষে এক হাজার জনের টেস্ট, করোনা রোগি পরিবহনের জন্য বিশেষ এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস চালুসহ আট দফা বাস্তবায়নের দাবিতে সড়ক অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।
বুধবার বেলা ১১টায় কর্মসূচি ঘোষণা উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন করেছে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) জেলা আহবায়ক কমিটির নেতৃবৃন্দরা। নগরীর ফকিরবাড়ি রোডের দলীয় কার্যলয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, বাসদ’র জেলার সদস্য সচিব ডাঃ মনিষা চক্রবর্তী। তিনি বলেন, দেশের আটটি বিভাগের মধ্যে করোনা চিকিৎসায় বরিশাল রয়েছে সর্ব নিন্মস্থানে। সরকারী তথ্য সূত্রে দেখা যায়, ঢাকায় করোনা পরীক্ষার জন্য ল্যাব ৩৮টি, চট্টগ্রামে নয়টি, সদ্যজাত বিভাগ রংপুর ও ময়মনসিংহে দুইটি। অথচ বরিশাল বিভাগের ছয় জেলার কোটি মানুষের চিকিৎসা ভরসাস্থল বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে করোনার নমুনা পরীক্ষার জন্য পিসিআর ল্যাব মাত্র একটি।
তিনি আরও বলেন, এই একটি ল্যাবেই রয়েছে নানা সমস্যা। এখানে দক্ষ টেকনোলজিস্ট না থাকার কারনে নমুনা পরীক্ষা করাতে গিয়ে রোগিরা প্রতিনিয়ত চরম হেনস্থার শিকার হচ্ছেন। এছাড়া করোনা রোগিদের জন্য নির্ধারিত শয্যার দিক থেকেও বিভাগীয় শহর বরিশাল সর্বনিন্মে রয়েছে। শেবাচিমের আইসিইউতে বেড রয়েছে মাত্র ১৮টি, বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক রয়েছেন মাত্র একজন।
মনিষা চক্রবর্তি আরও বলেন, নগরী ও জেলায় সরকারি-আধাসরকারি ও বেসরকারি প্রায় ৩০টি ক্লিনিক হাসপাতাল থাকার পরেও সেখানে করোনা রোগিদের চিকিৎসার কোন ব্যবস্থা নেই। সকলের একমাত্র ভরসা শেবাচিম হাসপাতাল।
সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, বরিশালে স্বাস্থ্যখাতে রোগ নির্ণয় থেকে শুরু করে চিকিৎসাক্ষেত্রের অপ্রতুলতা ফুটে উঠেছে। অপরদিকে প্রশাসন, সিটি কর্পোরেশন ও স্বাস্থ্য বিভাগের মধ্যে রয়েছে কাজের চরম সমন্বয়হীনতা। ফলে স্বাস্থ্য বিভাগ ও সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে অদ্যবর্ধি করোনা রোগিদের জন্য কোন এ্যাম্বুলেন্স সেবা পর্যন্ত চালু করতে পারেনি।
সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণা করা হয়, এসব দাবি দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য আগামী কাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত নগরীর সদররোডে সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করা হবে। জরুরি ভিত্তিতে এসব দাবি মানা না হলে তারা আরও কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করবেন বলেও হুশিয়ারী দিয়েছেন।
সংবাদ সম্মেলনে বাসদ’র জেলা শাখার আহবায়ক ইঞ্জিনিয়ার ইমরান হাবীব রুমনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।