বরিশালে জামায়াতের হরতাল ॥ ভাংচুর, ককটেল বিস্ফরোন ও সড়ক অবরোধ আটক-১

হাসিবুল ইসলাম, বরিশাল ॥ বিভিন্ন স্থানে গাছের গুড়ি ফেলে ও টায়ার জ্বালিয়ে এবং ককটেলের বিস্ফোরন ঘটিয়ে সড়ক-মহাসড়ক অবরোধ করে খন্ড খন্ড বিক্ষোভের মধ্য দিয়ে বরিশাল বিভাগের ৬ জেলা এবং মহানগরীতে চলছে জামায়াতের ডাকা অর্ধবেলা হরতাল। আজ ররিবার হরতালের প্রথম প্রহরে নগরী এবং জেলার কোথাও  তেমন কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। তবে নগরীর বিএম স্কুল রোডে বিক্ষোভের সময় শিবিরের এক কর্মীকে আটক করে পুলিশ।  
বরিশাল মহানগর জামায়াতের প্রচার সেক্রেটারী মো. শাহেআলম জানিয়েছেন, ফজরের নামাজের পর থেকে সকাল ৬টার মধ্যে নগরীর ১নং সিএন্ডবি পোলে ৪টি এবং বিএম কলেজ এলাকায় ৩ টি ককটেলের বিস্ফোরন ঘটিয়ে ও টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে জামায়ত-শিবির কর্মীরা। প্রায় একই সময় নগরীর নথুল্লাবাদ শিক্ষা বোর্ড অফিস এলাকায়, থানা কাউন্সিল, নবগ্রাম রোড, সিএন্ডবি রোড বিজয় বিহঙ্গ মোড়, চাঁদমারী, স্বরোড এবং বিএম স্কুল সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে হরতাল সমর্থকরা।
সকাল পৌঁনে ৬টায় বিএম স্কুল এলাকায় সড়কে আগুন জ্বালিয়ে শিবিরের একটি দল বিক্ষোভ শুরু করলে পুলিশ তাদের ধাওয়া করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ সময় পুলিশ শিবির কর্মী মাহমুদুর রহমানকে আটক করে বলে জানিয়েছেন কোতয়ালী থানা সূত্র।
এছাড়া বরিশাল জেলা (পশ্চিম) শিবির জেলার বানারীপাড়া, উজিরপুর, বাবুগঞ্জ এবং গৌরনদীর বিভিন্ন স্থানে গাছের গুড়ি ও বৈদ্যুতিক পোস্ট ফেলে এবং টায়ারে আগুনা জ্বালিয়ে হরতালের সমর্থনে বিক্ষোভ করে।
পশ্চিম শিবির জেলা শিবির সভাপতি মো. শহীদুল ইসলাম জানিয়েছেন, ভোর সাড়ে ৫ টা থেকে সকাল ৬ টার মধ্যে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া কলেজ থেকে বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত গাছের গুড়ি ফেলে ও টায়ার জ্বালিয়ে, মহাসড়কের উজিরপুরের ইচলাদী টোল প্লাজায় টায়ার জ্বালিয়ে এবং একই উপজেলার বামরাইলে মহাসড়কে গাছের গুড়ি ফেলে, টায়ার জ্বালিয়ে ও ২টি ককটেলের বিস্ফোরন ঘটিয়ে এবং মহাসড়কের বাবুগঞ্জের নতুন হাটে বৈদ্যুতিক খুঁটি ফেলে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করে হরতাল সমর্থকরা।
এছাড়া বাবুগঞ্জ ৫ রাস্তা মোড়ে টায়ার জ্বালিয়ে, একই উপজেলার মাধবপাশা বাজারে টায়ার জ্বালিয়ে ২টি ককটেলের বিস্ফোন ঘটিয়ে, বানারীপাড়া চৌরাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে ও ২টি ককটেল বিস্ফোরন ঘটিয়ে এবং উজিরপুর বাজার থেকে হাসপাতাল পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে টায়ার জ্বালিয়ে ও গাছের গুড়ি ফেলে সড়ক অবোরধ করে খন্ড খন্ড বিক্ষোভ করে জামায়াত-শিবির কর্মীরা।
বরিশাল মহানগর জামায়াতের সেক্রেটারী জহিরউদ্দিন মু. বাবর জানিয়েছেন, মহানগর জামায়াতের আমীর অ্যাডভোকেট মুয়ায্যম হোসাইন হেলাল এবং উজিরপুর থানা জামায়াতের আমীর হাফেজ কায়সারসহ কারান্তরীন ১৩ নেতাকর্মীর মুক্তির দাবীতে বিভাগের ৬ জেলা ও মহানগরী জুড়ে আজকের অর্ধবেলা হরতাল চলছে। তবে আজকের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা এ হরতালের আওতামুক্ত রাখা হয়েছে। আজকের মধ্যে কারান্তরীন ১৩ নেতাকর্মীকে মুক্তি না দিলে আরো কঠোর কর্মসূচী দেয়া হবে।
উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার দুপুরে বরিশাল জেলা আইনজীবী সমিতি থেকে নগরীর ব্রাউন কম্পাউন্ডের বাসায় ফেরার সময় কাকলী হল মোড়ে অ্যাডভোকেট হেলালকে আটক করে কোতয়ালী থানা পুলিশ। ওই দিনই তাকে পুরাতন ৫টি মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করলে বিচারক অ্যাডভোকেট হেলালকে কারাগারে প্রেরনের নির্দেশ দেন।
এছাড়া গত ২৮ ফেব্র“য়ারী পুলিশের দায়ের করা মামলায় উচ্চাদালতেরন অন্তবর্তীকালীন জামিনে থাকা উজিরপুর থানা জামায়াতের আমীর হাফেজ কায়সারসহ ১২ নেতাকর্মী গত বৃহস্পতিবার নি¤œ আদালতে হাজির হয়ে স্থায়ী জামিন চাইলে বিচারক তাদেরও কারাগারে প্রেরনের নির্দেশ দেন।
এসব ঘটনার প্রতিবাদে এবং কারান্তরীন নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবীতে বৃহস্পতিবার সন্ধায় জেলা ও মহানগর জামায়াত রবিবার শুধুমাত্র নগরী এবং জেলায় অর্ধবেলা হরতাল আহ্বান করেছিলো। কিন্তু পরদিন শুক্রবার সকালে বরিশাল অঞ্চল জামায়াতের পরিচালক আমিনুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং ৬ জেলা আমীরের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত এক সভায় অর্ধবেলা হরতালের পরিধি বাড়িয়ে বরিশাল জেলা ও মহানগরীর পরিবর্তে গোটা বিভাগ এবং মহানগরীতে পালনের সিদ্ধান্ত হয়।