বরিশালে দেড়মাস পর কবর থেকে কিশোরীর লাশ উত্তোলণ

বরিশাল টুডে \ আদালতের নির্দেশে এক মাস ১৬ দিন পর কবর থেকে শারীরিক প্রতিবন্ধি মনজু আক্তারের (১৪) লাশ সোমবার সকালে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের উপস্থিতিতে উত্তোলন করেছে পুলিশ। ঘটনাটি বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বাসুদেবপাড়া গ্রামের।

গৌরনদী থানার ওসি আবুল কালাম জানান, ওই গ্রামের জালাল মৃধা বাদি হয়ে প্রতিপক্ষ এস রহমানসহ সাত জনকে আসামি করে গত ১ জুলাই বরিশাল চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আদালতের নির্দেশে গত ৮ জুন গৌরনদী থানায় হত্যা মামলাটি রুজু করা হয়। এজাহারে উল্লেখ করা হয়, গত ১২ জুন দিবাগত রাতে প্রতিপক্ষ এস রহমানসহ ৭ জন আসামি তার (জালাল মৃধার) প্রতিবন্ধী কন্যা মনজু আক্তারকে (১৪) ঘর থেকে ধরে নিয়ে যায়। পরেরদিন ১৩ জুন দুপুরে বাড়ির পাশের খাল থেকে মনজুর ভাসমান লাশ উদ্ধার করা হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস.আই ফোরকান আহম্মেদ জানান, মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে তিনি বরিশাল চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট চতুর্থ আমলী আদালতে নিহতের ময়নাতদন্তের জন্য কবর থেকে লাশ উত্তোলণের আবেদন করেন। আবেদনের পরিপেক্ষিতে আদালতের বিচারক একজন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের উপস্থিতিতে লাশ উ্েত্তালণের নির্দেশ দেন। পরবর্তীতে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিদারে আলম মোহাম্মদ মাকসুদ চৌধুরীর উপস্থিতিতে গতকাল সোমবার সকালে জালাল মৃধার পারিবারিক কবরস্থান থেকে মনজুর লাশ উত্তোলণ করা হয়। এস.আই আরো জানান, লাশের সুরাতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য ওইদিন দুপুরে বরিশাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।