বরিশালে প্রতিবন্ধি ৭২টি পরিবারকে দেয়া হলো ঢেউটিন ও চেক ॥ জটিল রোগে আক্রান্ত ১৭২জনকে ৮৭ লাখ টাকার সরকারী অনুদান প্রদান

বরিশাল জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্ত্বরে ত্রান মন্ত্রনালয়ের উদ্যোগে ঘূর্নিঝড় আম্ফান সহ অন্যান্য দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ ৭২টি প্রতিবন্ধি পরিবারের মাঝে ২ বান্ডিল করে ঢেউটিন এবং ৬ হাজার টাকার করে চেক বিতরন করেন জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় এই কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান। সমাজ সেবা অধিদপ্তরের প্রবেশন কর্মকর্তা সাজ্জাদ পারভেজ এবং জেলা ত্রান ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার রায়সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া বরিশালে জটিল রোগে আক্রান্ত ১৭২জনকে ৮৭ লাখ টাকার অর্থ সহায়তা দেয়া হয়েছে। সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উদ্যোগে ঐ দিন বেলা ১২টায় বরিশাল জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের হল রুমে আনুষ্ঠানিকভাবে ৫ জন রোগীর হাতে চেক তুলে দেয়া হয়। এই ৫জন সহ জটিল রোগে আক্রান্ত ১৭২জনের ব্যক্তিগত হিসেব নম্বরে সরকারীভাবে সহায়তার অর্থ পৌঁছে যাবে বলে জানিয়েছেন সমাজ সেবা অধিদপ্তরের প্রবেশন কর্মকর্তা সাজ্জাদ পারভেজ। ঐ চেক বিতরনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান। সমাজ সেবা অদিপ্তরের উপ-পরিচালক আল-মামুন তালুকদারের সভাপতিত্বে চেক বিতরনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সমাজ সেবা অধিদপ্তরের প্রবেশন কর্মকর্তা সাজ্জাদ পারভেজ।
অনুষ্ঠানে ৬টি জটিল রোগে আক্রান্ত ১৭২জনকে ৫০ হাজার টাকা করে মোট ৮৭ লাখ টাকা অনুদান দেয়ার ঘোষনা দেয়া হয়। করোনা পরিস্থিতিতে সবাইকে এক জায়গায় জড়ো করে চেক বিরতন না করে ৫জনকে এনে প্রতীকি চেক বিতরন করা হয়। এই ৫জন সহ ১৭২জনের ব্যাংক হিসেবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অনুদানের টাকা চলে যাবে। সারা দেশের মধ্যে বরিশালে এই প্রথম এডভাইসের মাধ্যমে সবার হিসেব নম্বরে অনুদানের অর্থ প্রেরনের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সমাজ সেবা অধিদপ্তরের প্রবেশন কর্মকর্তা সাজ্জাদ পারভেজ।