বরিশালে মেয়র হিরনের সংবাদ সম্মেলন ॥ যুবলীগ ও ছাত্রলীগের হরতাল বিরোধী মিছিল

বরিশাল টু-ডে ॥ বরিশালে ১৮দলের ডাকা হরতালে সিটি কর্পোরেশনের ময়লা বহনকারী গাড়ী ভাংচুরের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মেয়র শওকত হোসেন হিরন। আজ বুধবার দুপর দেড় টায় এ সংবাদ সম্মেলন বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। এতে লিখিত বক্ত্যবে বিসিসি মেয়র হিরন বলেন, হরতাল একটি রাজনৈতিক কর্মসুচী হতে পারে। এ দেশে হরতাল দেয়ার সবার অধিকার আছে। আর এতে ময়লা বহনকারী যানবাহন, এ্যাম্বুলেন্স, ওষধের দোকান আওতামুক্ত থাকার কথা। কিন্তু কতিপয় কর্মী প্রতি হরতালে এরকমের ভাংচুর করে। তাই গকতাল মঙ্গলবার বিসিসির পরিছন্নকর্মীরা ভাংচুর আতঙ্কে নগরীর ময়লা অপসরন করেনি। এতে প্রায় নগরীতে এক দিনে ১শ ৫০টন ময়লা জমা হয়। এবারের হরতালে প্রায় ২দিনে   ৩টন ময়লা জমা হয়েছে । যদি এমনিভাবে প্রতিদিন ময়লা অপসারন করা না যায় নগরী ময়লার ভাগারে পরিনত হবে। আর এতে নগরবাসী ভয়ানক রোগের সম্মুখিন হবে। তিনি আরো বলেন, এ কয়েক দিনের হরতালে বিসিসির বেশ কয়েকটি ময়লার গাড়ী ভাংচুর করা হয়েছে। এর আগে গত ১৩ ডিসেম্বর নগরীর কবি জিনবনানন্দ দাস সড়কে একটি ময়লার গাড়ী ভাংচুর করে পিকেটাররা। এঘটনায় কোতয়ালী থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করা হয়েছে। তাই নগরবাসীর স্বার্থে এসব যানবাহন হামলা চালানো থেকে বিরত থাকার জন্য সাংবাদিকদের মাধ্যমে আহবান জানান তিনি। আরো বলেন, বরিশাল জেলা বিএনপির সভাপতি আহসান হাবিব কামাল ও মহানগর বিএনপির সভাপতি  এ্যাড. মজিবর রহমান সরোয়ার এমপির কাছে চিঠি দেয়া হবে যাতে হরতাল চলাকালীন সময়ে এ যানবাহনে কোন হামলা না চালায়। এসময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, বিসিসির নিবার্হী কর্মকর্তা নিখিল চন্দ্র দাশ, মেয়রের একান্ত সচিব মোঃ আলিমুল্লাহ, ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুস সোবাহান।
অপরদিকে বরিশাল নগরীতে আজ বুধবার দুপুর পৌনে ১২টায় হরতালের বিপক্ষে মিছিল-সমাবেশ করেছে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ। মিছিল পূর্বক সমাবেশে নগরীর সোহেল চত্ত্বরস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে বক্তৃতা করেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য সেরনিয়াবাত সাদেক আব্দুল্লাহ, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সুমন সেরনিয়াবাত, মহানগর ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক অসীম দেওয়ান। সমাবেশ শেষে আওয়ামী লীগ কার্যালয় থেকে যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সেরনিয়াবাত সাদেক আব্দুল্লাহ’র নেতৃত্বে হরতাল বিরোধী মিছিল নগরীর সদর রোড সহ গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে।