বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও চার রোগীর মৃত্যু

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজে (শেবাচিম) হাসপাতালে করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও চার রোগীর মৃত্যু হয়েছে। হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় আবুল কামাল আজাদ (৫০)। এর আগে করোনা উপসর্গ নিয়ে বাবুগঞ্জের ইছলাদী এলাকার ঐ রোগীকে বুধবার বিকাল ৪টায় হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করেন তার স্বজনরা। বৃহস্পতিবার করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পটুয়াখালী সদর টাউন কালিকাপুর এলাকার সালেহা বেগম (৫৫) মারা যান। একই দিন বিকেল ৩টা ৫০ মিনিটে করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হন তিনি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটে ভর্তির সাথে সাথে মৃত্যুবরণ করেন পিরোজপুর ভান্ডারিয়া উপজেলার গাজীপুর এলাকার জিতেন্দ্রনাথ বিশ^াস (৭০)। একই দিন রাত ৯টা ৩০ মিনিটে করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বিমল (৬০) নামের এক বৃদ্ধ। এর আগে করোনা উপসর্গ নিয়ে বরিশাল বিমানবন্দর এলাকার ঐ রোগীকে ১৩ জুন সকালে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করেন তার স্বজনরা। তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন।
এ নিয়ে গত ২৯ মার্চ থেকে শেবাচিম হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ১০৪ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে ৩৭ জনের করোনা পজেটিভ এবং বাকীরা করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।