বানারীপাড়ায় ডাকাতির প্রস্তুতি কালে ৭ ডাকাত আটক

বরিশালের বানারীপাড়ায় মঙ্গলবার গভীর রাতে গ্রামীন ফোনের টাওয়ারে চুরির প্রস্তুতিকালে ৭ দুবৃত্বকে আটক করেছে স্থানীয় জনতা। উপজেলার বিশারকান্দি ইউনিয়নের মরিচবুনিয়া বাজার থেকে আটক ঐ ৭ জনকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ সময় তাদের কাছ থেকে টাওয়ারের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ, চুরিতে ব্যবহৃত সরঞ্জাম ও দুটি ট্রলার উদ্ধার করা হয়। বানারীপাড়া থানা পুলিশের দাবি আটকৃতরা মরিচবুনিয়া ও চৌমোহনা বাজারে ডাকাতির উদ্দেশ্যে প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এ ঘটনায় বুধবার তাদের বিরুদ্ধে ডাকাতি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছেন। আটককৃতরা হচ্ছে পিরোজপুরের স্বরূপকাঠী উপজেলার বালীহারি গ্রামের হিরু, বলদিয়া কাটাখালি গ্রামের ইয়াসিন হাওলাদার, উলিবুনিয়া গ্রামের ইয়াছিন বাহাদুর, নাজিরপুর উপজেলার বাইনারী গ্রামের সহিদুল ইসলাম, পশ্চিম বাইনারী গ্রামের লিটন শেখ, গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার পাটগাতী গ্রামের শাহিন শেখ ও তাওহীদুল ইসলাম। বিশারকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম শান্ত জাননা, মঙ্গলবার রাত ১২ টার দিকে ৮ দুবৃত্ব দুটি ট্রলার যোগে এসে মরিচবুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও বাজার সংলগ্ন গ্রামীণ ফোনের টাওয়ারের মালামাল চুরি করার প্রস্তুতি নেয়। স্থানীয়রা টের পেয়ে তাকে জানালে তিনি লোকজন নিয়ে টাওয়ারের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ, চুরির কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জাম ও দুটি ট্রলার সহ ৭ জন দুবৃত্বকে আটক করেন। এ সময় নাজিরপুর উপজেলার পশ্চিম বাইনারী গ্রামের গাজী নামের এক দুবৃত্ব পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পরে বানারীপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) জাফর আহম্মেদ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
বানারীপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) জাফর আহম্মেদ জানান, বিশারকান্দি ইউনিয়নের মরিচবুনিয়া ও চৌমোহনা বাজারে ডাকাতির প্রস্তুতি কালে জনতার সহায়তায় ৭ জনকে আটক করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে তাদের বিরুদ্ধে ডাকাতির প্রস্তুতির মামলা দায়েরের পর বরিশালে জেলহাজতে প্রেরন করা হয়েছে।