বাবুগঞ্জে আরবের খেজুর বাগান

ফাহাদুল ইসলাম ফাহাদ।।বাবুগঞ্জের রহমতপুর হর্টিকালচার সেন্টারে আরব থেকে আমদানীকৃত উন্নত জাতের খেজুর চারা রোপন করা হয়েছে। এখানে উন্নত ১০ জাতের মোট ৭০টি কলম করা খেজুর গাছের বাগান তৈরি করা হয়ছে। কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের (ডিএইর অবসরপ্রাপ্ত) সাবেক মহাপরিচালক ও বর্তমান কৃষি মন্ত্রণালয়ের বিশেষজ্ঞ পুল সদস্য এম এনামুল হকের সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে রোপিত গাছে আগামি দুই বছর পর ফল দিবে বলে তারা আশাবাদি। পাশাপাশি প্রতিটি গাছ বছরে একশ থেকে তিনশ কেজি করে ফল দিবে বলে জানিয়েছেন ডিএইর অবসরপ্রাপ্ত মহাপরিচালক এম এনামুল হক। অতিসম্প্রতি সার্জন পদ্ধতি অবলম্বনে অপেক্ষাকৃত নিচু দুই বিঘা বিশিষ্ট জমিতে এ বাগান তৈরি করা হয়েছে। প্রতিটি গাছ ২০ ফুট দূরত্বে রোপন করা হয়। এছাড়াও এখানেই পাঁচ একর বিশিষ্ট নিচু জমিতে প্রায় পাঁচ শত বিদেশী খাটো জাতের নারিকেল বাগান করা হয়েছে। এগুলোও রোপনের তিন বছরের মধ্যে ফল দেয়া শুরু হবে। স্থানীয় চাষী এবং বিভিন্ন প্রশিক্ষনার্থীরা এসব বাগান দেখতে আসে এবং নিজেরা এরকম বাগান তৈরি করার আগ্রহ প্রকাশ করছে বলে জানিয়েছেন সেন্টারের উপ-পরিচালক স্বপন কুমার হাওলাদার। উন্নত প্রযুক্তির এ গাছ রোপন করে কৃষকরা অল্পদিনের মধ্যে বেশি ফলন পাবেন। একইসাথে এটা লাভজনক বলে জানিয়েছেন হর্টিকালচার সেন্টারের ডেভলেপমেন্ট অফিসার এবিএম মাহ ইমরান।#