বাবুগঞ্জে শফিকুল বাঁচতে চায়, আমাকে সাহায্য করুন’

আমি বাঁচতে চাই। পৃথিবীর আলো-বাতাসে আমি আমার মা বাবা সজন নিয়ে বেঁচে থাকতে চাই। নিজের জীবন রক্ষায় চিকিৎসা সহযোগিতার জন্য এভাবেই করুণ আর্তি জানিয়েছেন বাবুগঞ্জের রহমতপুর ইউনিয়নের ক্ষুদ্রকাঠী গ্রামের চা বিক্রেতা মোঃ সেলিম হাওলাদার ছেলে বাবুগঞ্জ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় এর প্রাক্তন ছাত্র ব্লাড ক্যান্সারে ও করোনায় আক্রান্ত ঢাকা মেডিকেলে আইসিইউতে ভর্তি মোঃ শফিকুল ইসলাম(২৬) ঢাকা মেডিকেলের ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ ডা. মহিউদ্দিন আলমের চিকিৎসাধীন মোঃ শফিকুল ইসলামের প্রতিমাসে চিকিৎসা ব্যয় প্রায় এক লাখ টাকা। কিন্তু চিকিৎসার জন্য এ বিপুল পরিমাণ অর্থ তার পরিবারের পক্ষে বহন করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে। এক সময় তার ছোট কাকা চিকিৎসার ব্যয় বহনের দায়িত্ব নিলেও এখন আর তার পক্ষেও ভাইয়ের ছেলে জন্য অর্থ যোগানো সম্ভব হচ্ছে না। মোঃ শফিকুল ইসলাম ইতোপূর্বে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের চেম্বারে চিকিৎসা নিয়ে প্রথমে আহসানিয়া মিশন ক্যান্সার হসপিটাল ভর্তি হন চিকিৎসাসেবা ব্যয় বহন করতে গিয়ে শফিকুলের বাবা নিজের ব্যবসা দীর্ঘ দের বছর মহামারী করোনাভাইরাস বন্ধ থাকায় এনজিও ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে পুত্রের চিকিৎসাসেবা দিতে গিয়ে রাস্তায় নেমেছে। উপায়ন্তর না দেখে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করেছে।
এ অবস্থায় মোঃ শফিউল ইসলাম ও তার পরিবার অসহায় একটি জীবন রক্ষায় বাবুগঞ্জের হৃদয়বান ব্যক্তিদের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন।
তিনি সংবাদ মাধ্যমের কাছে পাঠানো এক লিখিত আবেদনে তাকে সহযোগিতার অনুরোধ জানান।
মোবাইল নং 01723471172 বিকাশ01911558830 বিকাশ 01947728784 নগদ। আবদুল জালিল আহমেদ ১৬৭৪১০১০৬৫০০৬ পূবালী ব্যাংক লিঃ বাবুগঞ্জ শাখা।