বিএমপি’র উপ-পুলিশ কমিশনারের নিজ অর্থায়নে বরিশালে মাস্ক বিতরণ

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) এর নিজ অর্থায়নে নগরীতে মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় বরিশাল নগরীর নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনালে সাধারণ পথচারী, বাস চালক, অটোরিক্সা শ্রমিক, ছাত্র-ছাত্রী, ব্যবসায়ী, রিক্সা চালক ও পুলিশ সদস্যদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করেন। এ সময় উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মো. খাইরুল আলম বলেন, বাধ্যতামুলক মাস্ক ব্যবহার করার উপর তাগিদ দিতেই আজকের এই জনসচেতনতামুলক প্রচারনা। বৈশি^ক সংকট কোভিড-১৯ সংক্রমনের প্রদুর্ভাব কারনে মানুষকে সচেতন করার লক্ষ্যে এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আইজিপি মহোদয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী বাংলাদেশ পুলিশ করোনা ভইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টিতে প্রচার প্রচারনা, মাইকিং, বাধ্যতামুলক সবখানে সাবান দিয়ে হাত পরিস্কার, জীবানুনাশক স্প্রে ব্যবহার করার জন্য উদ্ধুদ্ধ করা হয়েছে। আমরা নিজেরা সচেতন হয়ে অন্যকে সচেতন করে মাস্ক পরে নিজেদের দৈনন্দিন কাজ সম্পাদন করলে ভয়ঙ্কর এ মহামারীর বিস্তার থেকে রক্ষা পাব। পরে নথুল্লাবাদ বাস মালিক সমিতির নের্তৃবৃন্দের সাথে ঈদুল আজহা উপলক্ষে যাত্রী হয়রানি বন্ধে মতবিনিময় করেছেন। এ সময় তিনি প্রতিটি কাউন্টার পরিদর্শন করে সাধারন যাত্রীদের সাথে কথা বলেন। এছাড়া মাস্ক বিতরণ কালে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) মো. জাকারিয়া রহমান জিকু, এয়ারপোর্ট থানার সহকারী কমিশনার নাসরিন জাহান, অফিসার ইনচার্জ এস এম জাহিদ বিন আলম প্রমুখ।