মেহেন্দিগঞ্জে আটকে রেখে বাবার কাছ থেকে জোর পূর্বক দলিল নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে ছেলেদের বিরুদ্ধে

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জে জোর পূর্বক দলিল নেওয়ার অভিযোগ করেছেন ছেলেদের বিরুদ্ধে এক পিতা। গত ১০ আগস্ট বরিশাল জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী পিতা মো. দেলোয়ার হোসেন মুন্সী। অভিযোগে উল্ল্যেখ করা হয়, গত ১ আগস্ট বিকেল ৫টায় ৮ থেকে ১০ জন সন্ত্রাসী ৪টি মোটর সাইকেল যোগে মেহেন্দিগঞ্জের লস্করপুর গ্রাম থেকে চরহোগলা গ্রামে পৌর কাউন্সিলরের বাড়ির দোতলায় তাকে (দেলোয়ার হোসেন মুন্সী) জোরপূর্বক ৪ দিন যাবৎ আটকে রেখে মারধর করে প্রান নাশের হুমকি দিয়ে নির্যাতন করে। পরবর্তীতে গত ৪ আগস্ট তার বিষয় সম্পত্তির দলিল লিখে জোরপূর্বক টিপ সহি নেওয়া হয়। তারপর তারা গত ৫ আগস্ট তাকে মুক্তি দেয়। তার জমি জোর পূর্বক নিয়ে রিয়াজ মুন্সী, মিলন মুন্সী, আখি বেগম, কুলসুমনেছার নামে দলিল করে নেয়। দেলোয়ার হোসেন মুন্সী প্রান ভয়ে উক্ত দলিলে টিপ সহি প্রদান করেন। উক্ত সন্ত্রাসীরা সাব-রেজিস্টার অফিসের কর্মকর্তাদের যোগ সাজসে জোরপূর্বক অস্ত্র ঠেকিয়ে জাহাঙ্গীর কাউন্সিলরের বাড়ির দোতলায় দলিলের কার্যক্রম শেষ করেন।
এ বিয়য়ে জানতে মেহেন্দিগঞ্জ পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর এর ব্যবহৃত মুঠো ফোনে একাধিক বার কল করে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।
মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার সাব-রেজিস্টার বাদল কৃষ্ণ বিশ্বাস জানান, আমি ঘটনাটি শুনেছি। কিন্তু এমন কোনে দলিল আমার এখানে রেজিস্টি হয়নি এবং হবেও না। আমি অবৈধ ভাবে কাউকে দলিল করতে দিব না বলে জানান তিনি।