যান্ত্রিক ক্রটিতে শেবাচিমের আরটিপিসিআর ল্যাবে করোনার নমুনা পরীক্ষা বন্ধ

যান্ত্রিক ত্রুটিতে বন্ধ বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের (শেবাচিম) করোনা পরীক্ষার আরটি-পিসিআর ল্যাবের মেশিন। হঠাৎ করেই শুক্রবার ল্যাবের মেশিনটিতে ত্রুটি দেখা যায়। কলেজ অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. এসএম সরওয়ারে কাছে ল্যাব থেকে পাঠানো এক চিঠির মাধ্যমে বিষয়টি জানানো হয়। চিঠিতে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের আরটি পিসিআর ল্যাবের প্রধান ও ভাইরোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. আকবর কবীর উল্লেখ করেন, শুক্রবার ল্যাবে ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষার প্রস্তুতি হাতে নেওয়া হয়। নমুনাগুলো অ্যানালাসিসের সময় দেখা যায় নমুনা পরীক্ষার কন্ট্রোল অস্বাভাবিক রিডিং দিচ্ছে এবং রোগীদের নমুনা পরীক্ষার কন্ট্রোলও অস্বাভাবিক দিচ্ছে। এ অবস্থায় পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায় পিসিআর ল্যাবটি কন্টামিনেশন হয়েছে। তাই অপাতত ল্যাবটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে অধ্যাপক ডা. একেএম আকবার কবীর বলেন, হয়তো আগামী কয়েকদিনের জন্য ল্যাবটি বন্ধ থাকবে। এখানে জমা নমুনাগুলো বিভাগীয় পরিচালক স্যারের সঙ্গে আলোচনা করে ঢাকায় পাঠানো হবে। তবে বিদেশ গমনেচ্ছুদের নমুনার বিষয়ে জরুরি পদক্ষেপ নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে।
এদিকে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. মুহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক জানান, মেডিকেলে কলেজের পিসিআর ল্যাবে নমূনা পরীক্ষা বন্ধ থাকলেও নমূনা সংগ্রহ চালু আছে। বরিশাল থেকে নমূনা সংগ্রহ করে কিছু নমূনা ঢাকায় এবং কিছু নমূনা পাঠানো হচ্ছে ভোলার পিসিআর ল্যাবে। বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেলে কলেজে চলতি বছরের ৯ এপ্রিল থেকে পিসিআর ল্যাবে করোনার নমূনা কার্যক্রম শুরু হয়।