২৯ মার্চ জাতীয় মহাসমাবেশে জনতার ঢল নামবে — পীর সাহেব চরমোনাই

ইসলামের ধারক বাহক আলেম সমাজ আল্লাদ্রোহী শক্তির তাবেদারী করতে পারে না উল্লেখ করে ইসলামী আন্দোলনের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, ১৮ দলীয় জোট এবং মহাজোটের অতীত, বর্তমানের ইসলামবিরোধী চালচিত্র সচেতন ওলামা মাশায়েখ ও দেশপ্রেমিক ঈমানদার জনতার কাছে সুস্পষ্ট। এরা ইসলামী আদর্শের বিজয় চায় না। বরং এরা ক্ষমতার রাজনীতিতে বিশ্বাসী। এই জোট-মহাজোট ইসলামকে ক্ষমতায় যাওয়ার সিড়ি বানিয়ে আলেম সমাজকে ধোঁকা দিয়ে ঈমানদার জনগণকে বোকা বানাচ্ছে। জোট মহাজোটের ধোঁকাবাজিতে পা না রেখে ওলামা সমাজকে একমাত্র ইসলামী আদর্শের ভিত্তিতে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানিয়ে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, দেশে স্থায়ী শান্তি, মানবতার সার্বিক মুক্তির একমাত্র পথ ইসলাম। আসুন ইসলামী আদর্শকে আগামী নির্বাচনে এক নম্বর শক্তিতে রুপান্তর করি। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর বলেন, ইসলামকে বিজয়ী আদর্শ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে আগামী ২৯ মার্চ জাতীয় মহাসমাবেশ ইসলামবিদ্বেষী শক্তির মোকাবেলায় এক বিরাট চ্যালেঞ্জ। ২৯ মার্চ মহাসমাবেশে লাখো লাখো জনতার ঢল নামিয়ে আমাদেরকে সেই চ্যালেঞ্জের মোকাবেলা করতে হবে।

আজ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বিভিন্ন মাদরাসা প্রধান ও মসজিদের খতিবদের সাথে মতবিনিময়কালে ইসলামী আন্দোলনের আমীর পীর সাহেব চরমোনাই একথা বলেন। মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন আন্দোলনের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, নগর সভাপতি অধ্যাপক এ.টি.এম হেমায়েত উদ্দীন, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক সৈয়দ বেলায়েত হোসেন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, মালিবাগ শহীদী জামে মসজিদের খতীব মাওলানা সাদেক আহমদ সিদ্দিকী, জামিয়া কারীমিয়া রামপুরার মুহতামিম মাওলানা মকবুল হুসাইন, দারুল কুরআন ঢাকার পিন্সিপাল মাওলানা আতাউর রহমান আরেফী, মাদ্রাসা বাহরুল উলুম ঢাকার প্রিন্সিপাল মুফতী কেফায়েতুল্লাহ কাশফী, সাঈদনগর মাদ্রাসার মুহতামিম শেখ ফজলে বারী মাসউদ, উত্তর বাসাবো কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতীব মুফতী হাফেজ আব্দুল করীম হবিগঞ্জী, জামিয়া এছহাকিয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুল হক বুখারী প্রমূখ।